প্রধানমন্ত্রী কি এখন উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের নিশানায়?

 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর “রমযান মুবারক” টুইট ছিল জাতির উদ্দেশ্যে এক বড় রকমের শুভকামনা। যেখানে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের গা গরম হয়ে উঠেছিল।
বার্তাটি ছিল- “আমি সবার নিরাপত্তা, সুস্থতা সমৃদ্ধির জন্য প্রার্থনা করি। এই পবিত্র মাস দয়া,ঐক্য ও সৌহার্দ্য বয়ে আনুক। কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে এই যুদ্ধে আমরা যেন জয়লাভ করি এবং সুস্থ ও স্বাভাবিক পৃথিবীর গড়ে তুলতে পারি।”

একদিকে তার রমযানের মুবারকবাদ, তারপর আবার মুসলিমদের প্রতি শুভবার্তা হিন্দুত্ববাদীদের ভার্চুয়াল জগত ক্ষোভের আগুনে দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে। তাদের নানান কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যে টুইটার সরগরম হয়ে ওঠে।
প্রধানমন্ত্রী আরব বিশ্বের অসন্তোষ প্রশমনের উদ্যোগে আবার এক
বার্তা দিলেন- “কোভিড-১৯ জাতি, ধর্ম,বর্ণ, গোত্র, ভাষা বা দেশ দেখে আক্রমন করে না। এই লড়াইয়ে আমরা সবাই এক সঙ্গে আছি।” এই মহানুভবতা আর সহ্য হয়নি হিন্দুত্ববাদীদের। তারা মোদীকে ট্যাগ করে লিখেছেন, আমরা একসঙ্গে নেই। তাকে বলা হয়েছে মুসলিম তোষণকারী।
ধর্ম নিরপেক্ষতার বাণী তাদের কাছে অশনি সংকেত বয়ে এনেছে।
নয়া উৎপত্তি হওয়া ‘মোদী বিরোধী’ ডিজিটাল জনতা এখন তবে কি যোগী আদিত্য নাথের মধ্যে আশার আলো জ্বালাতে চাইছে? সময় তার উত্তর দেবে।

আপনার মতামত

avatar
  Subscribe  
Notify of